• ২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বানারীপাড়ায় রাজুর সমর্থকদের ওপর গুলি বর্ষন : মটরসাইকেল ভাংচুর

admin
প্রকাশিত জানুয়ারি ২, ২০২৪, ১৫:১০ অপরাহ্ণ
বানারীপাড়ায় রাজুর সমর্থকদের ওপর গুলি বর্ষন : মটরসাইকেল ভাংচুর
সংবাদটি শেয়ার করুন....

বরিশাল ব্যুরো চীফ

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশাল-২ (বানারীপাড়া-উজিরপুর) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সমর্থকদের বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থী ফাইয়াজুল হক রাজুর কর্মীদের মারধর,মটরসাইকেল ভাংচুর,অগ্নিসংযোগ ও গুলি বর্ষনের ঘটনা ঘটেছে।

২ জানুয়ারী বানারীপাড়ার উদয়কাঠীতে বেলা দুটার সময় এ ঘটনা ঘটে । হামলায় ফাইয়াজুল হক রাজুর সমর্থকরা আহত হয়েছে। আহতদের মধ্য উজ্জল,ফিরোজ,তুফান,ফাহাদ,দুলাল,আলামিনসহ ৭ জনকে বানারীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে বানারীপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ মাইনুল ইসলাম বলেন,বানারীপাড়ার বিভিন্ন স্থানে সকার থেকে নৌকা ও ঈগর সমর্থকদের মধ্য বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটে ।পরে বিশারকান্দিতে ঈগল সমর্থকদের গাড়িতে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে ।ঘটনাস্থলে পুলিশি,বিজিবি,আনসার ,ওসি ও এ্যাসিল্যান্ড রয়েছে।পরিবেশ এখন শান্ত ।

বানারীপাড়ার সাংবাদিক পিয়াল আহমেদ জানান ,ঘটনাস্থলে এখন পুলিশ ও আনসার রয়েছে। ঈগল সমর্থকদের প্রায় ১৬টি মটর সাইকেল ভাংচুর ও অগ্নসংযোগ করেছে নৌকার লোকজন। এ ঘটনায় বানারীপাড়ায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

এ ব্যাপারে স্বতন্ত্র প্রার্থী ফাইয়াজুল হক রাজু বলেন,বানারীপাড়ায় আমার জনসমর্থন দেখে তাদের মাথা নষ্ট হয়ে গেছে তাই তারা আমার কর্মী ও সমর্থকদের ওপর হামলা ও গাড়ি ভাংচুর, গাড়িতে অগ্নিসংযোগনও গুলি বর্ষন করেছে। এটা দুঃখজনক ও নিন্দনীয়। তিনি দায়ীদের অতিসত্ত্বর গ্রেপ্তারের দাবী জানান।

এ দিকে,উজিরপুরে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থী রাজুর কর্মীদের উপর মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় হরতা ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড পাথারকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলো শেরেবাংলার দৌহিত্র ও আওয়ামী লীগের আর্ন্তজাতিক উপ-কমিটির সদস্য একে ফাইয়াজুল হক রাজু (ঈগল) এর কর্মী উত্তম কুমার বিশ্বাস ও দীপং রায়। আহতরা বর্তমানে মুমূর্ষ অবস্থায় বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে। আহতরা অভিযোগ করে বলেন, প্রতিদিনের ন্যায় ঈগল প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী ফাইয়াজুল হক রাজু এর নির্বাচনী ও কার্যালয় বসা ছিলাম। হঠাৎ করে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে নৌকার অতি উৎসাহিত কর্মী আবুল বাশার লিটন , শাহিন হাওলাদার, ইদ্রিস সহ ৮ জনের একটি দল ক্লাবে ঢুকে মারধর ও ভাঙচুর চালায়।পরে স্থানীয়রা আহতদেরকে উদ্ধার করে তাৎক্ষণিকভাবে শেবাচিমে প্রেরণ করে।এ বিষয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও আহতের স্বজনরা আরো জানান।