• ২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের সেবার মানোন্নয়নে কমিউনিটি অ্যাকশন মিটিং

ডেস্ক
প্রকাশিত জুন ১১, ২০২৪, ১৬:৪৯ অপরাহ্ণ
ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের সেবার মানোন্নয়নে কমিউনিটি অ্যাকশন মিটিং
সংবাদটি শেয়ার করুন....

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের সেবার টেকসই মানোন্নয়নের লক্ষ্যে সেবাগ্রহীতাদের অংশগ্রহণে কমিউনিটি অ্যাকশন মিটিং অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১১জুন) দুপুর ১২টায় সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কের কার্যালয়ে কমিউনিটি অ্যাকশন মিটিং অনুষ্ঠিত হয়।

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)’র সচেতন নাগরিক কমিটির (সনাক) সহযোগি অ্যাকটিভ সিটিজেন্স গ্রুপ (এসিজি) সভার আয়োজন করে।

হাসপাতালে সেবা গ্রহণ করতে গিয়ে সেবাগ্রহীতাদের অভিজ্ঞতা, মতামত, অভিযোগ ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা করা হয় উক্ত সভায়। টিআইবি’র বিশেষায়িত মোবাইলভিত্তিক এপস্ (প্যাকট্যাপ) এর মাধ্যমে কমিউনিটি মনিটরিং থেকে প্রাপ্ত তথ্য ও কমিউনিটি অ্যাকশন মিটিং-এ সেবাগ্রহীতাদের নিকট থেকে প্রাপ্ত বিভিন্ন সমস্যার কথা সভায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নিকট তুলে ধরা হয়। হাসপাতালের রোগীদের প্রয়োজনের তুলনায় বেশি টেস্ট করানো, বেসরকারী ডায়াগনিস্টিক সেন্টার এর দালালদের উৎপাত, অভিযোগ বক্সের ব্যবহার যথাযথভাবে কার্যকর ও নিয়মিত ফলোআপ করা, অভিযোগ বক্সের অভিযোগগুলো নির্দিষ্ট রেজিষ্টারে লিপিবদ্ধ ও সমাধানে উদ্যোগ গ্রহণ, সিসি ক্যামেরা সচল করা, হাসপাতালের সমাজসেবা বিভাগের সুবিধা রোগীদের জন্য সহজ করা, লোডসেডিং এ বৈদ্যুতিক জেনেরেটরের ব্যবহার নিশ্চিত করা, পর্যাপ্ত সুপেয় খাবার পানির ব্যবস্থা করা – ইত্যাদি বিষয়গুলো সমাধানের বিষয়ে সভায় আলোচনা করা হয়। এসব সমস্যার কথা শুনে তাৎক্ষনিকভাবে সমস্যা সমাধানের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশনা প্রদান করেন হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. শামীম আহমেদ। এছাড়া বেসরকারী ডায়াগনিস্টিক সেন্টার এর দালালদের উৎপাত রোধে জেলা প্রশাসনকে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা, হাসপাতালে নতুন বৈদ্যুতিক জেনেরেটর স্থাপনসহ কিছু কিছু বিষয় অন্য দপ্তরের অধীনে হওয়ায় সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিতভাবে জানানোর মাধ্যমে উক্ত সমস্যা সমাধানের উদ্যোগ নেয়ার আশ্বাস প্রদান করেন হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক।

টিআইবি’র এরিয়া কোঅর্ডিনেটর মিজানুর রহমানের সঞ্চালনায় সভায় হাসাপাতালের সেবাগ্রহীতা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. শামীম আহমেদ, কনসালটেন্ট (মেডিসিন) আবু আল হাসান, সচেতন নাগরিক কমিটির (সনাক) স্বাস্থ্য বিষয়ক উপকমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার, অ্যাকটিভ সিটিজেন্স গ্রুপের (এসিজি) সমন্বয়ক আরিফুর রহমান রায়হান, সহ সমন্বয়ক সুমাইয়া আক্তার, সদস্য সুব্রত সাহা, এনি, নুসরাত জাহান বৃষ্টি, আরিফ সরদার, ইয়ুথ এনগেজমেন্ট অ্যান্ড সাপোর্ট (ইয়েস) গ্রুপের সদস্য সাথি আক্তার, রিমন মাহমুদ, তামান্না ইসলাম, সনিয়া আক্তার, মো. সাব্বির হোসেন এবং ইন্টার্ন কাকন আক্তার, আরিফুল ইসলাম আকাশ।