• ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘যত হুমকিই আসুক শেখ হাসিনা মাথা নত করবেন না’

ডেস্ক
প্রকাশিত জুলাই ২৩, ২০২৩, ০৭:৪৩ পূর্বাহ্ণ
‘যত হুমকিই আসুক শেখ হাসিনা মাথা নত করবেন না’
সংবাদটি শেয়ার করুন....

যত হুমকিই আসুক শেখ হাসিনা মাথা নত করবেন না বলে জানিয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ১৪ বছর চেষ্টা করে বিএনপি আন্দোলন জমাতে পারেনি, আর পারবেও না বলে দাবি করেন তিনি।

শনিবার (২২ জুলাই) বিকেলে নোয়াখালী জিলা স্কুল মাঠে জেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে ‘উন্নয়ন ও শান্তি’ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ভিসানীতি নিয়ে নিষেধাজ্ঞা আসবে বলে বঙ্গবন্ধু কন্যাকে ভয় দেখিয়েছে। শেখ হাসিনা বলেছেন- আমার দেশ, আমি শেখ মুজিবের কন্যা। যত হুমকি আসুক শেখ হাসিনা মাথা নত করবে না, করতে পারে না।’

শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসা করে তিনি বলেন, ‘সৎ, সাহসী, মানবিক একজন নেতা শেখ হাসিনা। তিনি উন্নয়ন, দক্ষতা, সাহস ও কৌশলের জন্য সারা দুনিয়ায় আজকে প্রশংসিত। শুধু বাংলাদেশিরা নয়, একবাক্যে বিদেশিরাও শেখ হাসিনার প্রশংসা করে। শেখ হাসিনা প্রতিদিন রাতে তিন থেকে সাড়ে তিন ঘণ্টা ঘুমান। বাকি ২১ ঘণ্টা দেশ নিয়ে ভাবেন, মানুষ নিয়ে ভাবেন।’

বিএনপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘বিএনপি নেতাদের চোখ শুকিয়ে গেছে, আন্দোলন হয় না। এই বছর না ওই বছর আন্দোলন হবে কোন বছর? এ বছর রমজানের ঈদের পর বলে, কোরবানির ঈদ, কোরবানির পর বলে পরীক্ষার পর, এভাবে দেখতে দেখতে ১৪ বছর, আন্দোলন হবে কোন বছর ‘

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সমালোচনা করে কাদের বলেন, ‘জেনারেল জিয়াউর রহমান দম্ভ করে বলেছিলেন, মানি ইজ নো প্রবলেম। টাকা কোনো সমস্যা না। আর আজ লন্ডনে বসে জিয়াউর রহমানের পলাতক পুত্র তারেক রহমান গতকাল স্কাইপিতে বলেছে, টাকার কোনো সমস্যা নেই।’

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘তারেক রহমান ১৬ বছর আগে মুচলেকা দিয়ে লন্ডনে পালিয়ে গেছে আর রাজনীতি করবে না বলে। সেই তারেক রহমান এখন বলে, টাকার কোনো অভাব হবে না। আন্দোলন করে শেখ হাসিনার পতন ঘটাও। তারেক রহমান বিএনপির নেতাকর্মীকে টাকার দম্ভ দেখাচ্ছে। এত টাকা কোথায় থেকে এলো? কোটি কোটি টাকা পাচার করেছে সে। তারেকের অর্থপাচারের কথা সারা দুনিয়ার মানুষ বুঝে। এই অপশক্তিকে রুখতে হবে।’

নিজ জেলায় আয়োজিত সমাবেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নোয়াখালীর মানুষকে বিএনপির নেতারা অনেক ভুল বোঝাতে চেয়েছে। এই নোয়াখালী সহস্র মানুষকে ধোঁকা দিয়ে। আজকে ধোঁকা দেওয়ার দিন শেষ। আজকে নোয়াখালীর মানুষ বঙ্গবন্ধুর কন্যার সঙ্গে আছে। কর্মীরা চায় স্মার্ট বাংলাদেশ।’

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ খায়রুল আনম সেলিমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সহিদ উল্যাহ খান সোহেলের সঞ্চালনায় সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এবং সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, নোয়াখালী-১ আসনের সংসদ সদস্য এইচ এম ইব্রাহীম, নোয়াখালী-২ আসনের সংসদ সদস্য মোরশেদ আলম, নোয়াখালী-৩ আসনের সংসদ সদস্য মামুনুর রশীদ কিরণ, নোয়াখালী-৬ আসনের সংসদ সদস্য আয়েশা ফেরদাউস, সাবেক সংসদ সদস্য মোহাম্মদ আলী, প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী জাহাঙ্গীর আলম, জেলা পরিষদ সদস্য আবদুল ওয়াদুদ পিন্টুসহ দলের অন্যান্য নেতারা।