• ২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মন্ত্রণালয় সামালাচ্ছেন ১০ নারী সচিব, ১০ জেলায় ডিসি

ডেস্ক
প্রকাশিত জুন ৯, ২০২৩, ০৯:৫০ পূর্বাহ্ণ
মন্ত্রণালয় সামালাচ্ছেন ১০ নারী সচিব, ১০ জেলায় ডিসি
সংবাদটি শেয়ার করুন....

প্রশাসনে নারীদের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে। সরকারি চাকরিতে নারীরা আগের তুলনায় বেশি আসছেন। নীতি-নির্ধারণী পদগুলোতেও নারীদের উপস্থিতির হার বাড়ছে।

বর্তমানে প্রশাসনে সিনিয়র সচিব, সচিব ও সমপদমর্যাদার ৮৫ জন কর্মকর্তার মধ্যে নারী রয়েছেন ১০ জন। সর্বোচ্চ প্রশাসনিক কর্মকর্তা হয়ে নারীরা মন্ত্রণালয়, বিভাগ কিংবা অন্য কোনো সরকারি দপ্তর সামলাচ্ছেন। একই সঙ্গে ৬৪টি জেলার মধ্যে ১০ জন নারী জেলা প্রশাসক রয়েছেন।

মাঠ প্রশাসনের শীর্ষ পদ বিভাগীয় কমিশনার পদে কোনো নারী কর্মকর্তা নেই। তবে ৪৯২টির মধ্যে ১৩৯টি উপজেলায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) দায়িত্বে আছেন নারী কর্মকর্তারা।

সচিব, সিনিয়র সচিব ও সমমর্যাদার নারী কর্মকর্তাদের মধ্যে রয়েছেন- অর্থ বিভাগের সিনিয়র সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন, পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য সিনিয়র সচিব মোসাম্মৎ নাসিমা বেগম, শিল্প মন্ত্রণালয়ের সচিব জাকিয়া সুলতানা, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব শরিফা খান, পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মোসাম্মৎ হামিদা বেগম, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব নাহিদা রশিদ, পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব শাহনাজ আরেফিন।

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে রয়েছেন ফারহিনা আহমেদ। এছাড়া রয়েছেন- প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (এনএসডিএ) নির্বাহী চেয়ারম্যান (সচিব) নাসরিন আফরোজ, কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব ওয়াহিদা আক্তার।

নারী জেলা প্রশাসকদের মধ্যে রয়েছেন- মুন্সীগঞ্জে কাজী নাহিদ রসুল, মাদারীপুরে রহিমা খাতুন, নেত্রকোনায় অঞ্জনা খান মজলিশ, জামালপুরে শ্রাবস্তী রায়, শেরপুরে সাহেলা আক্তার, বান্দরবানে ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি, ঝিনাইদহে মনিরা বেগম, ঝালকাঠি ফারাহ্ গুল নিঝুম, হবিগঞ্জে ইশরাত জাহান ও রংপুরে চিত্রলেখা নাজনীন।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, বর্তমানে নারী অতিরিক্ত সচিব রয়েছেন ৫৫ জন, প্রশাসনে মোট অতিরিক্ত সচিবের মোট সংখ্যা ৩২৭ জন। মোট যুগ্মসচিব ৮৫৮ জন, এর মধ্যে নারী রয়েছেন ১৬৪ জন। এক হাজার ৭০৪ জন উপসচিবের মধ্যে নারী রয়েছেন ৩৭০ জন।

বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে নারী কর্মকর্তাদের সংখ্যা মোট ১৩ হাজার ৩৪৩ জন। এর মধ্যে স্বাস্থ্য ক্যাডারে ৬ হাজার ২৫৫ জন, সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারে ৩ হাজার ৬৪৫, প্রশাসন ক্যাডারে এক হাজার ২৫৭, কৃষি ক্যাডারে ৫৭২, পুলিশ ক্যাডারে ২৭৭, তথ্য ক্যাডারে ১৪৬, পশু সম্পদ ক্যাডারে ১৪৫, কর ক্যাডারে ১৪১, মৎস্য ক্যাডারে ১৩৭, অর্থনীতি ক্যাডারে ১০২, নিরীক্ষা ও হিসাব ক্যাডারে ৮৩, গণপূর্ত ক্যাডারে ৭৯, পররাষ্ট্র ক্যাডারে ৭৮, শুল্ক ও আবগারি ক্যাডারে ৭৭, সড়ক ও জনপদ ক্যাডারে ৬১, পরিবার পরিকল্পনা ক্যাডারে ৪৪, ডাক ক্যাডারে ৪২, আনসার ক্যাডারে ৩৯, সমবায় ক্যাডারে ২৮, রেলওয়ে প্রকৌশলী ক্যাডারে ২১, বিচার ক্যাডারে ২১, রেলওয়ে পরিবহন ও বাণিজ্যিক ক্যাডারে ২০, পরিসংখ্যান ক্যাডারে ১৯, টেলিযোগাযোগ ক্যাডারে ১৩, খাদ্য ক্যাডারে ১০, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল ক্যাডারে ৮, বন ক্যাডারে ৬ জন নারী সদস্য রয়েছেন।