সর্বশেষ: কৃষকদের মাঝে প্রণোদনার ঋণ বিতরণে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন সোনালী ব্যাংক বরিশালের জিএম ঝালকাঠিতে মাক্স বিতরন করলো রোটারী ক্লাব ঝালকাঠিতে নাগরিক অ্যাডভোকেসি ফোরামের কমিটি গঠন হিমু সভাপতি, রিজভী সম্পাদক মহান বিজয় দিবস উদযাপনে নলছিটিতে প্রস্তুতিমুলক সভা ফকরুল মজিদ মাহমুদ কিরনের জন্মদিনে রিজভীর শুভেচ্ছা আশাশুনিতে ভূমিহীন গৃহহীনদের গৃহ নির্মাণ কাজ পরিদর্শনমুজিব বর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা গৃহহীন থাকবে না শরনখোলার লোকালয় থেকে অজগর উদ্ধার করে সুন্দরবনে অবমুক্ত। দুধ কেনার পয়সা নেই মিসরির পানি খেয়ে বেঁচে মা হারা শিশু ঈশান নলছিটির ভারপ্রাপ্ত ইউএনও করোনায় আক্রান্ত ঝালকাঠি সরকারি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ইলিয়াস বেপারীর জন্মদিন আজ

পরীক্ষা পদ্ধতিতে আসছে বড়সড় পরিবর্তন’

প্রকাশ: 22 October, 2020 5:22 : PM

মুখস্থ ও সনদ নির্ভর পরীক্ষা বাদ দিয়ে শ্রেণি মূল্যায়নের মাধ্যমে প্রতিটি শিক্ষার্থীকে দক্ষ ও যোগ্য করে তুলতে পরীক্ষা ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনা হচ্ছে। পরিকল্পনা করা হয়েছে স্থায়ীভাবে মূল্যায়নভিত্তিক ব্যবস্থা তৈরি করার।

বুধবার (২১ অক্টোবর) দুপুরে শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষার বিষয়ে ভার্চুয়াল প্রেস কনফারেন্সে এ কথা জানান। এ সময় সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি সংযুক্ত ছিলেন।
উপমন্ত্রী বলেন, ‘ন্যাশনাল এক্সামিনেশন অ্যান্ড এসেসমেন্ট সেন্টার প্রতিবেশী দেশগুলোতেও হয়ে গেছে। আমাদের জাতীয় পরীক্ষা ও মূল্যায়ন কেন্দ্র করার বিষয়টি পরিকল্পনাধীন রয়েছে। মূল্যায়ন নিয়ে যে কাজগুলো হয়েছে, এর ধারাবাহিকতায় একটি আইনি সংস্থা তৈরি করারও পরিকল্পনা রয়েছে। পরীক্ষা ব্যবস্থায় বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনার জন্য গবেষণা করে এ পরিবর্তন আনার কোনো বিকল্প নেই।’

গতানুগতিক পরীক্ষা ব্যবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে বলে উল্লেখ করেন শিক্ষা উপমন্ত্রী।
এসময় গতানুগতিক সনদ ও পরীক্ষা নির্ভর পরীক্ষা থেকে বেরিয়ে আসার বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, আমরা উন্নত বিশ্বের কথা বলি, উন্নত দেশ হতে চাই। উন্নত বিশ্বের অংশ হতে চাই। আবার উন্নত বিশ্বের যে শিক্ষা ব্যবস্থা সেখানে কিন্তু প্রত্যেক ক্লাসে গ্রেডিং পরীক্ষা পাস, ফেল, জিপিএ-৫ এ ধরনের উন্মাদনা নেই।
আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নত দিকে যেতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বছরের শেষে বছরের মাঝখানে পরীক্ষা নিয়েই যে সেটি মূল্যায়ন করা যায়, তা নয়। আরও অনেক ধরনের মূল্যায়নের পদ্ধতি রয়েছে। আমরা ধারাবাহিক মূল্যায়নের যে পদ্ধতিগুলো রয়েছে সেগুলোতে যেতে চাচ্ছি। প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কোথায় কোথায় দুর্বলতা আছে, আমরা সেগুলো চিহ্নিত করে দুর্বলতা দূর করতে চাই। আমরা পরীক্ষা ভীতি, পরীক্ষার চাপ, শারীরিক মানসিক চাপ চাই না। আনন্দের মধ্য দিয়ে শিক্ষার্থীরা জ্ঞানার্জন করবে, দক্ষতা অর্জন করবে, সুযোগ্য নাগরিক হবে। তাই সনদ ও শুধুমাত্র পরীক্ষানির্ভর শিক্ষা থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে।’