সর্বশেষ: তাহিরপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন পালন নলছিটিতে প্রধানমন্ত্রীর ৭৪তম জন্মদিনে আলোচনা ও দোয়া প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছে ছাত্রলীগ নেতা সম্পদ প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছে ছাত্রলীগ নেতা সম্পদ রাজাপুরে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে অবহিতকরণ সভা বানারীপাড়ায় বন্দর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভা অনুষ্ঠিত বানারীপাড়ায় বন্দর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভা অনুষ্ঠিত বানারীপাড়ায় বন্দর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভা অনুষ্ঠিত শেখ হাসিনার সব 'শুভদিন' পিতার অবর্তমানে! পরিবারের আকুতি কিডনি রোগে আক্রান্ত হাওয়া মনিকে বাঁচাতে

ঝালকাঠি জেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠন নিয়ে নানা গুঞ্জন!

প্রকাশ: 10 September, 2020 12:06 : PM

নিজস্ব প্রতিবেদক ::
ঝালকাঠিতে গত ২০১৫ সালের ১৯ জুলাই জেলা ছাত্রলীগের পুর্নাঙ্গ কমিটি অনুমোদন হয় ।এরপর দীর্ঘ দিন যাবত কমিটি না হওয়ার কারনে নেতাকর্মী ও পদপ্রত্যাশীদের মধ্যে এক ধরনের চাপা হতাশার লক্ষ্য করা গেছে। বর্তমান কমিটির সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফিক ও সম্পাদক এস এম আল-আমিন সহ পদধারী অনেক ছাত্রলীগ নেতা বিবাহিত ও সন্তানের জনক, অনেকের নামে আছে নানান বিতর্কিত অভিযোগ ও পাল্টাপাল্টি মন্তব্য। আওয়ামী লীগের বর্ষীয়ান নেতা বঙ্গবন্ধুর স্নেহাশিস ও শেখ হাসিনার আস্থাভাজন নেতৃত্ব আলহাজ্ব আমির হোসেন আমুর নিজ জেলা হওয়ায় নেতা-কর্মীরা তার নির্দেশনা ও হস্তক্ষেপের আশায় বুক বেধে আছেন। ২০১৯ সালের ২০ নভেম্বর জেলা ছাত্রলীগ প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে পদ প্রত্যাশীদের জীবন বৃত্তান্ত সংগ্রহ করলেও আজ অব্দি কোন কমিটি হয়নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জেলা ছাত্রলীগের এক নেতা বলেছেন, ‘বর্তমানে জেলার নেতৃত্ব সাংগঠনিক ভাবে ঝিমিয়ে ঝিমিয়ে এগিয়ে চলছেন। কমিটির শুরু থেকে স্থানীয় গ্রুপিং ও ভাইদের আধিপত্যের ছত্রছায়ায় থেকে অনেক নাটকীয় অধ্যায় পাড় করলেও সংগঠন স্থবির হয়ে আছে। গত ৬ বছরে কলেজ, উপজেলা, শহর, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কমিটি গঠনে ব্যর্থ ইউনিট শীর্ষ নেতারা। কেন্দ্র ঘোষিত অনেক প্রোগ্রামও আমাদের নেতৃত্ব বাস্তবায়ন করতে অনেকটা ব্যর্থ, এখানে ভাইদের নিয়ে ব্যানার আর নেতায় ঝালকাঠিতে অবস্থান করলে সবাই এক্টিভিটি বাড়ায়ে নেতাকে জানান দেয়া ছাড়া তেমন কিছু লক্ষ্য করা যায় না।’

আসন্ন কমিটিতে পদপ্রত্যাশী অনেক নেতাই জানিয়েছেন, ছাত্রলীগ একটি ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠন। নেতৃত্বে যা বা যারাই আসুক ত্যাগী, পরিশ্রমী, মেধাবী ও স্বচ্ছ ক্লিন ইমেজের কর্মী বান্ধব প্রকৃত বঙ্গবন্ধুর আদর্শের প্রকৃত ছাত্র যারা যাদের একাডেমিক ধারাবাহিকতা রয়েছে এমন নেতৃত্বের প্রতি যেন দায়িত্ব দেয়া হয় এবং স্থানীয় সিন্ডিকেট বরাবর যে আনফিট নেতৃত্ব বের করে নিয়ে আসে এবার যেন সেসব না পারে সে বিষয়ে শীর্ষ নেতৃত্ব ও সংশ্লিষ্ট নেতাদের প্রতি বিনীত আবেদন রেখেছেন।

ঝালকাঠি জেলা ছাত্রলীগের কমিটিতে অনেক যোগ্য নেতৃত্ব রয়েছেন যারা সাংগঠনিক রাজনীতিতে তাদের নেতৃত্ব গুন তুলে ধরেছেন স্বমহিমায়, আবার কেউ কেউ আছেন ভাইদের ছত্রছায়ায় থেকে আলোচিত প্রার্থী। জেলার সভাপতি ও সম্পাদক এই দুইটি পদে ৯ জন ও ৭ জন করে প্রার্থী হয়ে যারা সভাপতি পদে আলোচনায় আছেন তাদের মধ্যে মাসুদ মধু, আবু সালেহ মোহাম্মদ হাসানুল বারী, শেখ সজীব, তরিকুল ইসলাম পারভেজ, মোঃ জুবায়ের, শামীম ও রুম্মান খান এবং সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনায় আছেন শেখ রাব্বি,উজ্জল মজুমদার, নাদিম মাহমুদ, আতিকুল ইসলাম হৃদয়, কাজী রইজ আহম্মেদ অন্তু, , রিজভী আহম্মেদ আলভী ও সিফাত সহ প্রমুখ। তবে জেলার একাধিক নেতা একে অপরের প্রতি পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করে বলেছেন এদের মধ্যে কেউ কেউ বিবাহিত আছেন, কেউ আবার পুলিশ মারা মামলার আসামি এবং কেউ কেউ শিক্ষাগত যোগ্যতায় স্কুলের গন্ডি পেরুতে না পারলেও জাল জালিয়াতির মাধ্যমে সার্টিফিকেট সংগ্রহ করে পদ প্রত্যাশা করছেন।”